শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৮:৩১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম
ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপ‌তি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন ফেব্রুয়ারির রক্তঝরা পথ বেয়েই অর্জিত হয় মাতৃভাষা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ন্যায়ের অধিকার প্রতিষ্ঠার প্রেরণার উৎস মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজ গাজীপুরের মাস্টারবাড়ী এলাকা হতে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার গাজীপুরের কাইঞ্জানুল এলাকা হতে চাঞ্চল্য সৃষ্টিকারী ধর্ষক সাগর গ্রেফতার প্রথম আলো সম্পাদকের জামিন বঙ্গবন্ধুর মানবতার দর্শন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তুলে ধরতে হবে নির্মূল কমিটির সভায় বিশিষ্টজন মোবাইল টাওয়ারের রেডিয়েশন ক্ষতিকর নয়, দাবি বিটিআরসির টঙ্গীতে ৯ চিহ্নিত ছিনতাইকারী আটক ১৭ মার্চ জাতির পিতার জন্মদিনে সারা দেশে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজসমূহে আনন্দ র‌্যালি ———————-সিনেট অধিবেশনে উপাচার্য ড. হারুন-অর-রশিদ জাতীয় পার্টি ছাড়লেন সাবেক স্বাস্থ্য সচিব এম.এম নিয়াজ উদ্দিন প্রেম ঘটিত ঘটনায় টঙ্গীতে ছুরিকাঘাতে যুবককে হত্যার চেষ্টা গাবতলীর কাগইল নায়েব উল্ল্যা আলিম মাদ্রাসায় বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত গাবতলীতে ছাত্রদলনেতা রাসেলের কুলখানী অনুষ্ঠিত আজম খানের ১ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গাবতলীতে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত গাবতলীর ঐতিহ্যবাহী পোড়াদহ মেলা সম্পন্ন \ বৃহস্পতিবার বউ মেলা বগুড়ায় জাতীয় সাংবাদিক সংস্থার ৩৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন জাতীয় যুব সম্মেলনের নিবন্ধন চলছে টুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ভারতীয় হাইকমিশনারের শ্রদ্ধা
মুহূর্তেই ধুলায় পরিণত সুউচ্চ দুই ভবন

মুহূর্তেই ধুলায় পরিণত সুউচ্চ দুই ভবন

Spread the love

আন্তর্জাতিক প্রতিবেদক

সুউচ্চ দুই ভবন। একটির নাম এইচটুও হলি ফেইথ। আরেকটির নাম আলফা স্রিন। নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণের মাধ্যমে আজ শনিবার প্রথমে ধুলায় পরিণত হলো এইচটুও হলি ফেইথ। এর কয়েক মিনিট পর একই পরিণতি হয় দ্বিতীয় ভবনটির। ভারতের কেরালার কোচিতে এ ঘটনা ঘটে।
পরিবেশ আইন অমান্য করে সাগরপাড়ে গড়ে তোলা হয়েছিল চারটি বিলাসবহুল বহুতল ভবন। সুপ্রিম কোর্টের রায়ে এগুলো ভাঙার নির্দেশ দেওয়া হয়। পরিবেশ আইন অমান্যকারীদের প্রতি কঠোর মনোভাব দেখানোর অংশ হিসেবে প্রশাসন ভবন চারটি ভেঙে ফেলতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞা ছিল। এরই ধারাবাহিকতায় আজ নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরকের মাধ্যমে প্রথমে এইচটুও হলি ফেইথ ভবনটি ভাঙা হয়। মুহূর্তেই গুঁড়িয়ে যায় ১৯ তলা বিশিষ্ট ভবনের ৯০টি ফ্ল্যাট। আগেই সেখান থেকে বাসিন্দাদের সরিয়ে নেওয়া হয়।

বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়েছে, এরপর ভাঙা হয় আলফা স্রিন টুইন টাওয়ার। বাকি দুটি ভবন আগামীকাল রোববার ভাঙা হবে। ভবন দুটি ভাঙার সময় আশপাশের দুই হাজার বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হয়।

ভারতে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে ভবন নির্মাণ বহুগুণে বাড়লেও নির্মাতারা নিয়মকানুনের তোয়াক্কা করেন না এবং স্থানীয় কর্মকর্তাদের নির্দেশ উপেক্ষা করেন। আর কেউ যাতে এ ধরনের দুঃসাহস না দেখায়, সেই বার্তা দিতে প্রশাসন কঠোর অবস্থানে গিয়ে ভবনগুলো ভেঙেছে।

ভবন ভাঙার সময় সাইরেন বাজানোর পাশাপাশি জনগণকে ২০০ মিটার দূরে থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়। বিপুলসংখ্যক কৌতূহলী মানুষ ভবন ভেঙে ফেলার দৃশ্য দেখতে আশপাশে জড়ো হয়। ভবন ভাঙার পর ধুলা কুণ্ডলীর মতো হয়ে চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে। এতে স্বাস্থ্যঝুঁকির শঙ্কা করছেন কেউ কেউ।

দিব্যা নামের এক নারী বলেন, ঘটনাস্থলের পাশেই তিনি থাকেন। যখন ওই বিলাসবহুল কমপ্লেক্সের সুইমিং পুল, ভবনের কিছু অংশ ভেঙে পড়তে শুরু করে, তখন তিনি সত্যিই খুব উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন।

শামসুদ্দিন কারুনাঙাপাল্লি জানালেন, তিনি ১ লাখ ৪৫ হাজার ডলার দিয়ে এই কমপ্লেক্সে একটি ফ্ল্যাট কিনেছিলেন। ভবন ভাঙার এই দৃশ্য তাঁরা দেখেননি। চোখের সামনে স্বপ্ন এভাবে ধূলিসাৎ হয়ে যাওয়ার দৃশ্য দেখা খুবই হৃদয় বিদারক। কোনো ভুল ছাড়া দীর্ঘমেয়াদি ভোগান্তিতে পড়তে হলো বলে তিনি মন্তব্য করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 jonotarbangla.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com