ArabicBengaliEnglishHindi

কালিয়াকৈরে সেন্টাল হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু


প্রকাশের সময় : জুন ৬, ২০২২, ৮:২৮ অপরাহ্ন / ৩১২
কালিয়াকৈরে সেন্টাল হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু

স্বপন সরকার কালিয়াকৈর(গাজীপুর) প্রতিনিধি ->>
কালিয়াকৈরে ভুল চিকিৎসায় লাকি বেগম নামের এক গৃহবধুর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় কালিয়াকৈর সেন্টাল হাসপাতালের বিরুদ্ধে। ঘঠনাটি ঘটেছে গত শনিবার রাতে এঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে রোগীর স্বজনসহ এলাকাবাসী ওই হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ করে হাসপাতাল ভাঙচুরের চেষ্টা চালায়। নিহত লাকি বেগম(৩৫) কালিয়াকৈর উপজেলার শ্রীফলতলী এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য উজ্জল হোসেনের স্ত্রী।

রোগীর পরিবার,এলাকাবাসী ও হাসপাতাল সুত্রে জানা যায়, কালিয়াকৈর উপজেলার শ্রীফলতলী এলাকার সাবেক ইউপিসদস্য উজ্জল হোসেনের স্ত্রী লাকি বেগমকে গত শনিবার সন্ধায় বমি এবং পাতলা পায়খানা নিয়ে কালিয়াকৈর বাজারের কালিয়াকৈর সেন্টাল হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালের আনার পর ওই হাসপাতালের ডাক্তার সাইফুল ইসলাম রোগীর চিকিৎসা শুরু করেন। একপর্যায়ে তাকে পর পর কয়েকটি ইনজেকশন পুশ করেন।

এরপর তাকে একটি জুস খাওয়ানো হয়। এর কিছুক্ষন পরে রোগীর শরীর কালো হয়ে ধীরে ধীরে নিস্তেজ হয়ে পড়ে। এসময় রোগীর অবস্থা খারাপ দেখে পরিবারের লোকজন তাকে ঢাকার একটি হাসপাতালে নেওয়ার দাবি করলেও হাসপাতাল কর্তৃক্ষ রোগীগে অন্যত্র নিতে বাধা দেয়। এভাবে কিছুক্ষন যাবার পর রোগী মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। এদিকে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মারা যাওয়ার খবর পেয়ে রোগীর স্বজন এবং এলাকাবাসী ওই হাসপাতালের সামনে এসে জরো হয়।

এসময় ভুলচিকিৎসায় লাকি বেগমের মৃত্যুর প্রতিবাদ জানিয়ে হাসপাতালের সামনে বিক্ষোভ করে। একপর্যায়ে উত্তেজিত লোকজন হাসপাতালে হামলা চালানোর চেষ্টা করে। খবর পেয়ে কালিয়াকৈর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। এসময় স্থানীয় শ্রীফলতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিবর রহমান ওই হাসপাতালে উপস্থিত হয়ে ঘটনার বিচার করার আশ্বাস দিলে রোগীর স্বজনরা শান্ত হয়।

লাকি বেগমের বোনের জামায় জিন্নত আলী বলেন, পাতলা পায়খানা নিয়ে লাকি বেগমকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পর রোগীকে পর পর ৪টি ইনজেকশন পুশ করা হয়। পরে স্যালাইন দেওয়া হয়। এর কিছুক্ষন পর রোগী নিস্তেজ হয়ে পড়ে। আমাদের সন্দেহ হলে আমরা রোগীকে ঢাকার একটি হাসপাতালে নেওয়ার কথা বললেও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ রোগীকে নিতে বাধা দিয়ে বলে রোগীর কিছুই হয়নি। এর কিছুক্ষন পর মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে লাকি বেগম। লাকি বেগমকে ভুল চিকিৎসা দিয়ে মেরে ফেলা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে আমরা এর বিচার দাবি করছি।

শ্রীফলতলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিবর রহমান বলেন, উজ্জল মেম্বারের স্ত্রীকে সেন্টাল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসলে সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় তার মৃত্যু ঘটে। ভুলচিকিৎসায় মত্যুর অভিযোগ এনে রোগীর পরিবারের লোকজন হাসপাতালের সামনে এসে বিক্ষোভ করে। পরে এঘটনার সঠিক তদন্ত করে বিচারের আশ্বাস দিলে তারা শান্ত হয়। তাছাড়া বিষয়টি ইউ এন ও মহোদয়কে জানানো হয়েছে।

কালিয়াকৈর সেন্ট্রাল হাসপাতালের পরিচালক আমিনুল দেওয়ান বলেন, ভুলচিকিৎসায় মৃত্যুর বিষয়টি সঠিক নয়। চিকিৎসারত অবস্থায় রোগী মারা গেছে।

কালিয়াকৈর থানার ওসি তদন্ত আবুল বাশার বলেন, এঘটনায় এখনো কোন অভিযোগ পাইনি। তবে গতকাল ওই হাসপালে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যুর খবর পেয়ে উত্তেজিত লোকজন জরো হলে পুলিশ গিয়ে তাদের শান্ত করে।

কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ভুল চিকিৎসায় এধরনের ঘটনা হলে ওই হাসপাতালসহ জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।