ArabicBengaliEnglishHindi

অহেতুক পণ্যের দাম বাড়ালে কঠোর ব্যবস্থা: তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী


প্রকাশের সময় : অগাস্ট ১৭, ২০২২, ৯:৩০ অপরাহ্ন / ৭৫
অহেতুক পণ্যের দাম বাড়ালে কঠোর ব্যবস্থা: তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ->>
জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির সুযোগ নিয়ে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ও পরিবহনের ক্ষেত্রে অহেতুক দাম বাড়ালে সরকার কঠোর ব্যবস্থা নেবে বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

 

মসজিদ নির্মাণ কাজে আর্থিক সাহায্যের আবেদন

 

বুধবার (১৭ আগস্ট) দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

সাম্প্রতিক সময়ে দেশে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি করতে হয়েছে। মূল্য সমন্বয় করে পশ্চিমবঙ্গের সমপরিমাণ পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এর সুযোগ নিয়ে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী নিজেদের মুনাফা বাড়ানোর জন্য পণ্যের মূল্য বাড়িয়ে দিয়েছে। এমনকি পরিবহনের খরচও বাড়িয়ে দিয়েছে। এটি কোনোভাবেই কাম্য নয়। সরকার এসব মনিটরিং করছে। আশা করবো, ব্যবসায়ী সংগঠন-নেতৃবৃন্দ এনিয়ে ভূমিকা রাখবেন। সরকার প্রয়োজনে এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে বামজোটের ডাকা হরতাল প্রসঙ্গে প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান বলেন, মূল্যস্ফীতি শুধু বাংলাদেশে নয়, বিশ্বব্যাপী। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সার্বিক মূল্যস্ফীতি ৯.৬%, আমেরিকায় ৮.৫%, যুক্তরাজ্যে ৯.৪%, পাকিস্তানে ২৫%, অস্ট্রেলিয়ায় ৯% এর ওপরে। কিন্তু আমাদের দেশে ৭.৫% এর ওপরে যা মে মাসের আগ পর্যন্ত ৭% এর নিচে ছিল এবং তা এখনও অনেক দেশের চেয়ে কম। আর বামজোটের ভাইয়েরা মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি, তাই আমি তাদের সম্মান করি। কিন্তু আমি বিনীতভাবে অনুরোধ জানাবো, তাদের কর্মকাণ্ড যেন বিএনপিসহ স্বাধীনতাবিরোধী, দেশবিরোধী অপশক্তি, জঙ্গিগোষ্ঠী লাভবান না হয়। যারা স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি, জঙ্গিদের লালন-পালন-তোষণ করে, তারা যেন বাম ভাইদের কর্মকাণ্ডে লাভবান না হয়। দেশটাও যেন তাদের হাতে চলে না যায়। সেটিই তাদের প্রতি অনুরোধ।

বিএনপি মহাসচিব বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে জাতিসংঘের তদন্তের দাবি জানিয়েছেন এ প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বিএনপি মাঝেমধ্যে যারা গুম হয়েছে বলে, কিছুদিন পরে তাদের আবার দেখা যায়- খুঁজে পাওয়া যায়। এতে প্রমাণিত হয় বিএনপি প্রকাশিত গুমের তথ্য ঠিক নয়। আমি মনে করি, ২০১৩-১৪-১৫ সালে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য যারা দেশে অগ্নিসন্ত্রাস করেছে, মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে; ঘুমন্ত ট্রাকচালককে পুড়িয়ে, মুসল্লিকে বোমা মেরে হত্যা করেছে, তাদের এবং যারা মদদ দিয়েছে, অর্থায়ন করেছে, ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার স্বার্থে সেই বিএনপি নেতাদের দ্রুত বিচার হওয়া প্রয়োজন। এটিই আজকের দিনের দাবি।

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ এদিন মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বঙ্গবন্ধুর ওপর শিল্পী লিসা কালামের একক কণ্ঠে ১০০ গানের সংকলনের মোড়ক উন্মোচন করেন। লিসা কালাম, প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী মো. জাহাঙ্গীর আলম ও লিসা কালামের বাবা আবুল কালাম এসময় বক্তব্য রাখেন। শিল্পী আশফ-উদ-দৌলা, সাংবাদিকবৃন্দ ও মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তথ্যমন্ত্রী লিসা কালামকে বঙ্গবন্ধুর ওপর একশত গান গাওয়ার জন্য ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, প্রত্যেকটি গানের ইংরেজি অনুবাদ করা ও কয়েকটি গান ইংরেজিতে গাওয়া বিষয়টিকে নতুন মাত্রা দিয়েছে। বঙ্গবন্ধুর ওপর অগাধ মমত্ববোধ ও শ্রদ্ধা না থাকলে এটি সম্ভবপর হতো না। শিল্পী লিসা কালাম বঙ্গবন্ধুর ওপর গান যেমন গাইবেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে সমাজের অবহেলিত মানুষের জন্যও গান গাইবেন। সমাজের অসংগতি নিয়ে গান গাইবেন এবং সেই গানগুলো মানুষকে জাগ্রত করবে, আশা প্রকাশ করেন হাছান মাহমুদ।