ArabicBengaliEnglishHindi

আশুলিয়ার পাথালিয়ায় সড়কের পাশের ৩০ গাছ কেটে বিক্রি


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ২১, ২০২২, ১১:০৪ অপরাহ্ন / ৭৪
আশুলিয়ার পাথালিয়ায় সড়কের পাশের ৩০ গাছ কেটে বিক্রি
সাভার প্রতিনিধি ->>
সাভারে সড়কের পাশ থেকে ছোট-বড় ফলদ-বনজসহ ৩০টি গাছ অনুমতি ছাড়া কেটে বিক্রি করা হয়েছে। আশুলিয়ার পাথালিয়ায় নোয়াদ্দা চৌরাস্তা এলাকায় স্থানীয় মীর আলী নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে সরকারি সড়কের এই গাছ কেটে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে। তবে এঘটনায় এখন পর্যন্ত প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন তৎপরতা দেখা যায়নি।
স্থানীয়দের অভিযোগ, নোয়াদ্দা চৌরাস্তা এলাকায় সরকারি সড়কের গাছ কর্তন করে বিক্রি করা হয়েছে। শনিবার রাতে গাছ কেটে অধিকাংশ বিক্রি করে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।
এবিষয়ে অভিযুক্ত মীর আলী বলেন, গাছের জন্য আমার ধান ক্ষেতের সমস্যা হয়। এরজন্য আমি গাছগুলো কেটে বিক্রি করে দিয়েছি। সড়কের পাশে সরকারি গাছ কাটা যায় কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমি চেয়ারম্যানকে জানাইছি। তিনি বলছে, যে কয়টা গাছ কাটছেন, সেই কয়টা গাছ লাগাবেন।
এব্যাপারে পাথালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ পারভেজ দেওয়ান বলেন, সড়কের পাশে সরকারি গাছ কাটার ঘটনা আমি শুনেছি। যে গাছ কেটেছে সে একবার ফোন দিয়েছে আবার আমার কাছে একবার আসছিলো। আমি তাকে বলে দিয়েছি এটা আইনের ব্যাপার। তিনি আরো বলেন, সে বাঁচার জন্য হয়তো আমাকে জড়িয়ে মিথ্যা অপপ্রচার চালাচ্ছে।
উল্লেখ্য, বন বিভাগের বিধিমালায় আছে, ব্যক্তিমালিকানাধীন বা সরকারি জমি থেকে গাছ কাটার আগে সংশ্লিষ্ট এলাকার বিভাগীয় বন কর্মকর্তার কাছে নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হয়। এরপর তদন্ত করে গাছ কাটার যৌক্তিকতা পাওয়া গেলে গাছের দরদাম নির্ধারণ ও পরবর্তী সময়ে আরও গাছ লাগানোর শর্তে গাছ কাটার অনুমতি দেয়া হয়। এ প্রক্রিয়া বন বিভাগের মাধ্যমে করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে।