ArabicBengaliEnglishHindi

ইসলামে স্বাস্থ্যের যত্ন নেওয়ার গুরুত্ব


প্রকাশের সময় : অগাস্ট ৩০, ২০২২, ৭:০৯ অপরাহ্ন / ২২৩
ইসলামে স্বাস্থ্যের যত্ন নেওয়ার গুরুত্ব

মাওলানা শামীম আহমেদ ->>
স্বাস্থ্য সকল সুখের মূল। আল্লাহ তায়ালার জন্য সকল প্রশংসা, যিনি আমাদের জন্য সকল পবিত্র, উপকারী, কল্যাণকর খাদ্য হালাল করেছেন আর সকল অপবিত্র যা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর,তা হারাম করেছেন। সালাতু সালাম প্রিয় নবীজি সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর উপর যিনি পবিত্র ধর্ম ইসলামের মাধ্যমে শরীরের যত্ন নেওয়ার গুরুত্ব দিয়েছেন।

ইসলাম আমাদের জীবনকে সুস্থ সুন্দর পবিত্র জীবন যাপনের পথ প্রদর্শন করে। কেননা সুস্বাস্থ্য সকল কাজের জন্য বিশেষ করে ইবাদত বন্দেগী করার জন্য বিশেষ সাহায্যকারী। আল্লাহ তায়ালা খাদ্য ও পানীয় এর মধ্যে যা উত্তম ও পবিত্র তা হালাল করেছেন। যা শরীরের জন্য উপকারী। গরু, ছাগল, উটের গোস্ত ও দুধ, মাছ, কতিপয় পাখী, ফল-ফলাদি, শাক-সবজি, মধু। এ খাবারগুলো শরীরের শক্তি, রক্ত বর্ধক, রোগ প্রতিরোধকারী। আল্লাহ তায়ালা বলেন, মধুতে রয়েছে মানুষের জন্য আরোগ্য। অবশ্যই এতে রয়েছে চিন্তাশীল সম্প্রদায়ের জন্য নিদর্শন। সূরা নাহল, আয়াত-৬৯।

পানাহার গ্রহণের বিষয়ে ইসলাম স্বাস্থ্য উপযোগী পথ নির্দেশনা দিয়েছে। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘যিনি আমাকে সৃষ্টি করেছেন, অতঃপর তিনিই পথ প্রদর্শন করেন। যিনি আমাকে আহার ও পানীয় দান করেন। যখন আমি রোগাক্রান্ত হই, তখন তিনিই আরোগ্য দান করেন।’ (সূরা আশ-শোয়ারা, আয়াত: ৭৮-৮০)।

রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, কালো জিরায় সকল প্রকার রোগের উপশম রয়েছে, মৃত্যু ব্যতিত। বুখারী হাদীস নং- ৫৪৬৯। নবীজি সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, তোমাদের জন্য গরুর দুধ পান করা উচিত কেননা তা সকল প্রকার গাছ ঘাষ হতে উৎপন্ন হয় এ পানীয় রোগের উপশম। মোসতাদরাক হাকেম, হাদিস নং- ৮৩০৪।