ArabicBengaliEnglishHindi

‘কাজল রেখা’ সিনেমাটি নিয়ে ভীষণ আশাবাদী: মন্দিরা চক্রবর্তী


প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২, ৬:০২ অপরাহ্ন / ৭৬
‘কাজল রেখা’ সিনেমাটি নিয়ে ভীষণ আশাবাদী: মন্দিরা চক্রবর্তী

বিনোদন প্রতিবেদক ->>
২০১২ সালে দেশের জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো ‘চ্যানেল আইয়ের সেরা নাচিয়ে’র দ্বিতীয় রানারআপ খেতাব জয় করেন  মন্দিরা চক্রবর্তী।

এরপর থেকে নাচের অনুষ্ঠানের পাশাপাশি নাটকে নিয়মিত অভিনয় করছেন। এরই মধ্যে গিয়াস উদ্দিন সেলিমের পরিচালনায় ‘কাজল রেখা’ সিনেমায় নাম ভূমিকায় অভিনয় করে রুপালি জগতে পা রাখলেন মন্দিরা। সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওরে শটের মধ্য দিয়ে কাজল রেখায় তার শুটিংয়ের কাজ শেষ হলো বলে জানালেন তিনি। চলতি মাসেই এ সিনেমার বাকি কাজ শেষ হতে চলছে। সিনেমাটি নিয়ে মন্দিরা ভীষণ আশাবাদী হয়ে উঠছেন। এ নিয়ে মন্দিরা চক্রবর্তী তার অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, ‘সিনেমাটিতে অভিনয় শুরু করার পর আমি জানতে পেরেছি, কাজল রেখা চরিত্রে অভিনয়ের জন্য অনেক তুখোড় অভিনেত্রীর কথাও ভাবনায় ছিল শ্রদ্ধেয় সেলিম ভাইয়ের। কিন্তু শেষতক আমাকেই নেয়া হলো। তার মনে হয়েছে, চরিত্রটির রূপায়ণ আমাকে দিয়ে সম্ভব। আমার কাছে এখনো স্বপ্নের মতো মনে হয়। কারণ এমন ভালো একটি সিনেমায় কাজ করব ভাবনায়ও ছিল না। আমি বাস্তব জীবনে যেমন চুপচাপ শান্ত প্রকৃতির, কাজল রেখা চরিত্রটিও ঠিক তেমনি। এটা সত্যি, শুরুতে নার্ভাস ছিলাম। কিন্তু রিহার্সেল করতে গিয়ে পরবর্তী সময়ে ভয়টা কমে যায়। আমার অল্প সময়ের ক্যারিয়ারে অভিনয়ে নিজেকে যতটা আত্মস্থ করেছি, তার পুরোটা দিয়েই অভিনয় করেছি। আমার শতভাগ বিশ্বাস, কাজল রেখা দর্শকের ভালো লাগবে। এখন সেই মাহেন্দ্রক্ষণের জন্য অপেক্ষা। জানি না আসলে এ অপেক্ষা কবে শেষ হবে। দর্শক থেকে শুরু করে প্রত্যেকের কাছ থেকে সাড়া পাওয়ার প্রতীক্ষায় আমি। আমার পুরো পরিবার ভীষণ অপেক্ষায় সিনেমাটির জন্য। সবকিছু ঠিকঠাক শেষ হোক, সামনে আসুক কাজল রেখা।

মৈমনসিংহ গীতিকার কাজল রেখা অবলম্বনে খ্যাতিমান পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিম নির্মাণ করছেন সিনেমা। কাজল রেখা সিনেমাটি ২০১৯-২০ অর্থবছরে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত। এটি মূলত একটি রূপকথার গল্প, যেটি ৪০০ বছর আগের কাহিনী। এর আগে বণিক বার্তাকে কাজল রেখা নিয়ে বলতে গিয়ে গুণী পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিম বলেন, ‘নেত্রকোনার দুর্গাপুরে যেখানে সিনেমাটির শুটিং করা হচ্ছে, সেটা গারো ও হাজংদের অঞ্চল। ৭০-৮০ জন গারো ও হাজং মিলে কাজল রেখার সেট তৈরির কাজ করেছি। এটা আসলে মহাযজ্ঞ। কাজল রেখা আমার করা এ-যাবৎ কালের সবচেয়ে বড় প্রজেক্ট। এর সেটে আমরা ওই সময়ের ঘটনা তুলে ধরেছি। আমরা যে রকম ঘরবাড়িতে থাকতাম সেটাই দেখিয়েছি। ইংরেজ, মোগল ও তুর্কিরা না এলে আমরা যেভাবে আমাদের আর্কিটেকচার ডেভেলপ করতাম, সেটা মাথায় রেখেই সেট তৈরি করেছি। ৪০০ বছর আগের গল্প নিয়ে কাজল রেখা নির্মাণ করা হচ্ছে। এটা আমার স্বপ্নের প্রজেক্ট। প্রায় এক যুগ আগে থেকে আমি কাজল রেখা নিয়ে সিনেমা নির্মাণ করতে চেয়েছি। এখন সিনেমাটির শুটিং চলছে, এটা আমার কাছে স্বপ্নের মতো।

কাজল রেখার প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করবেন শরিফুল রাজ ও নবাগত চিত্রনায়িকা মন্দিরা চক্রবর্তী। বিভিন্ন চরিত্রে রয়েছেন রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা, ইরেশ যাকের, আজাদ আবুল কালাম, খায়রুল বাশার, সাদিয়া আয়মানসহ অনেকে। এ সিনেমায় কংকন দাসী চরিত্রে অভিনয় করছেন মিথিলা আর সুচ কুমার চরিত্রে শরীফুল রাজ। গত এপ্রিলে শুরু হয়েছিল কাজল রেখার শুটিং। পরিচালনার পাশাপাশি এ সিনেমার চিত্রনাট্য ও সংলাপ বিন্যাস করেছেন গিয়াস উদ্দিন সেলিম।