ArabicBengaliEnglishHindi

কালিয়াকৈরে চার সংখ্যালঘুকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ৩১, ২০২২, ১০:৫৯ অপরাহ্ন / ৯২
কালিয়াকৈরে চার সংখ্যালঘুকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ

স্বপনসরকার,কালিয়াকৈর(গাজীপুর)প্রতিনিধি ->>
গাজীপুরের কালিয়াকৈরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নারীসহ চার সংখ্যালঘুকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গত শনিবার রাতে কালিয়াকৈর থানায় পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের ও একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করা হয়।

এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানা গেছে, কালিয়াকৈর উপজেলার বলিয়াদি এলাকার কয়েকটি সংখ্যালঘু পরিবারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে একই এলাকার এবিএম শাহিনের জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। কিন্তু শনিবার বিকেলে গৌরসাহা মালামাল ক্রয়ের জন্য কালিয়াকৈর বাজারে যাচ্ছিলেন। সুযোগ বুঝে পূর্ব বিরোধের জেরে শাহিন ও তার স্ত্রী কহিনুর বেগম, সন্তান মনু মিয়া, শাহপরান, রনি, ঝুমুর আক্তার মিলে শনিবার বিকেলে গৌরসাহাকে লাঠি-সোঠা দিয়ে পিটাতে থাকে। এসময় তারা গৌরসাহার সাথে ব্যাগে থাকা মালামাল ক্রয়ের প্রায় এক লাখ পঁচিশ হাজার টাকা ও একটি স্বর্নের চেইন ছিনিয়ে নেয়। পরে তাকে বাঁচাতে গেলে তার স্ত্রী বিলাসী রানী সাহা ও পাশের বাড়ীর গৌরগোপাল সাহাকেও তারা মারপিট করে। তাদের ডাকচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে গেলে হামলাকারীরা সংখ্যালঘুদের হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরে গুরুত্বর আহত চারজনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওইদিন রাতে ভুক্তভোগীরা কালিয়াকৈর থানায় একটি সাধারন ডায়েরীসহ পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযুক্তদের মধ্যে ঝুমুর আক্তার বলেন, আমাদের ঘরের চালের টিন ঝড়ে উড়িয়ে অন্যত্র নিয়ে যায়। সেই টিন আনতে গেলে ওরা (হিন্দুসম্প্রদায়) হামলা চালিয়ে বাবা-মাসহ আমাদের মারধর করে। আমাদের মারধর করে উল্টো আবার আমাদের নামেই থানায় অভিযোগ দিয়েছে। তবে সে অভিযোগ মিথ্যা।

কালিয়াকৈর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফেন্সি বিশ্বাস জুয়েল জানান, ওই ঘটনায় থানায় অভিযোগ হয়েছে। তবে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।