ArabicBengaliEnglishHindi

ডিমলায় ভূয়া দলিল তৈরী করার দায়ে গ্রেফতার-৬


প্রকাশের সময় : নভেম্বর ১৩, ২০২২, ৯:১০ অপরাহ্ন / ১৬৬
ডিমলায় ভূয়া দলিল তৈরী করার দায়ে গ্রেফতার-৬

ডিমলা(নীলফামারী) প্রতিনিধি ->>

নীলফামারীর ডিমলায় ভূয়া দলিল তৈরী করার দায়ে ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে ডিমলা থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন-ডিমলা সদর ইউনিয়নের উত্তর তিতপাড়া গ্রামের নছিমুদ্দিনের পুত্র রফিকুল ইসলাম ভুট্টু (৫০), সরদারহাট গ্রামের মৃত: কছির উদ্দিনের পুত্র মাজেদুল ইসলাম (৫২)। থানা সূত্রে জানা যায় রফিকুল ইসলাম ও মাজেদুল ইসলাম দীর্ঘদিন যাবত ভূয়া দলিল সৃষ্টি করিয়া আসিতেছে।

এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার (১১ নভেম্বর) গভীর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডিমলা থানা এসআই জাহিদ, এসআই জয়ন্ত কুমার রায়ের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্স সহ তাদেরকে নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকালে তাদের কাছ থেকে
১৬৫টি তৈরী সীল ও বিভিন্ন মূল্যের ২৮টি স্ট্যাম্প, জাবেদা নকল ৩টি, পাকিস্তান পিরিয়য়েডর স্ট্যাম্প, ভারতীয় দলিল ১টি, কালার লিগ্যাল কাগজ ২০ পিচ, দলিল লেখা তরল রাসায়নিক দ্রব্য ১৮টি বোতল সহ সরঞ্জাম পাওয়া যায়।

অসাধুভাবে প্ররোচিত হইয়া প্রতারনা করিয়া জাল জালিয়াতি করায় ১৮৬০ সালে প্লাম কোর্ট এর ৪২০/৪৬৫/৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/৪৭২/৩৪ ধারা দু’জনের বিরুদ্ধে ডিমলা থানার একটি মামলা করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জাহিদ। যাহার মামলা নং-১২/২২, অপর দিকে জাল জালিয়তি পৃথক পৃথক দুইটি মামলায় আরও ৪জনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- নুরআলম স্বপন, নজরুল ইসলাম, মামলা নং- ১০, তারিখ- ১০ নভেম্বর-২০২২ ও সি.আর ১০৭/২২ মামলায় অক্ষয় কুমার রায় ও মহর আলী।

এ বিষয় ডিমলা থানার ওসি লাইছুর রহমান ও ওসি তদন্ত বিশ্বদেব রায় বলেন- গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন ভাবে সরকারী অফিস দপ্তরের সীল মোহর সহ ভূয়া দলিল তৈরী করে আসিতেছে। এ ব্যাপারে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা তাদেরকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই। আজ ১১ নভেম্বর বিকালে গ্রেফতারকৃতদের নীলফামারী জেলা আদালতে প্রেরণ করা হয়।