ArabicBengaliEnglishHindi

পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থায় র‌্যাব


প্রকাশের সময় : জুন ২২, ২০২২, ৮:১৯ অপরাহ্ন / ৫১
পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থায় র‌্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক ->>
আগামী ২৫শে জুন পদ্মা বহুমুখী সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে মাদারীপুরের শিবচর বাংলা বাজার ( ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী) ঘাটে বুধবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর জনসভাস্থলে অস্থায়ী হাসপাতালে সংবাদ সম্মেলন করেন ,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আগমনকে ঘিরে র‌্যাবের পক্ষ থেকে যে সকল নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে সেই বিষয়ে সাংবাদিকদের জানান,

শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি বাঙ্গালি জাতির সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ সন্তান, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে, যিনি স্বপ্ন দেখেছিলেন একটি স্বাধীন সার্বভৌমত্ব অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের।

স্বপ্ন দেখেছিলেন সেই দেশের যেখানে জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবাই বাংলাদেশী পরিচয়ে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারবে। বন্ধুগণ, জাতির পিতার স্বপ্নের বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমরা সবাই কাজ করে যাচ্ছি। বাংলাদেশের ১৭কোটি মানুষের স্বপ্নের পদ্মা সেতু, বিশেষ করে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের ২১টি জেলার মানুষের এ আকাঙ্খা পূরণে আজ পদ্মাসেতু দৃশ্যমান এবং উদ্বোধনের অপেক্ষায়। সেতুর উপর দিয়ে সকলের নির্বিঘ্ন চলাচলসহ সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে র‍্যাব ফোর্সেসসহ সকল আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সর্বদা সজাগ রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আগামী ২৫ জুন ২০২২ তারিখে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী স্বপ্নের পদ্মা সেতুর শুভ উদ্বোধন করবেন। পদ্মা সেতু উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেশি/বিদেশি অতিথিবৃন্দ, সরকারের মাননীয় মন্ত্রী, এমপি, সামরিক/বেসামরিক উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত থাকবেন।

সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় পদ্মা সেতু উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের নিরাপত্তা নিশ্চয়নের লক্ষে অন্যান্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি র‍্যাবও নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করবে।

পদ্মা বহুমুখী সেতুর নির্মাণ কার্যক্রম শুরুর পর সার্বিক কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে চলমান রাখতে র‍্যাবসহ অন্যান্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সর্বদা সচেষ্ট ভূমিকা রাখে। পদ্মা সেতু নির্মাণ সামগ্রী চুরির সাথে জড়িত দুইটি চক্রের ১০ জনকে বিপুল পরিমাণ চুরিকৃত নির্মাণ সামগ্রী ও অন্যান্য সামগ্রীসহ ২০১৯ সালে মুঞ্জিগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করে র‍্যাব।

নিরবিচ্ছিন্নভাবে নির্মাণ কার্যক্রম চলমান থাকায় স্বপ্নের পদ্মা বহুমুখী সেতু উদ্বোধনের দ্বারপ্রান্তে। পদ্মা বহুমুখী সেতুর শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে র‍্যাব ফোর্সেস কর্তৃক বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গৃহীত হয়েছে। সকল ধরণের অনাকাংঙ্খিত পরিস্থিতি মোকাবেলায় র‍্যাব ফোর্সেস কর্তৃক পর্যাপ্ত সংখ্যক র‍্যাব সদস্য মোতায়েন রয়েছে।

পদ্মা বহুমুখী সেতুর শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে র‍্যাব ফোর্সেস সেতুর দুই প্রান্তে সার্ভিস এরিয়া-১ ও সার্ভিস এরিয়া-২ সহ পার্শ্ববর্তী এলাকাসমূহে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করেছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান এবং পদ্মাসেতুর নিরাপত্তা জোরদার করতে দুই প্রান্তেই পর্যাপ্ত সংখ্যক র‍্যাব সদস্য মোতায়েন থাকবে।

সমাবেশস্থল, টোল প্লাজা, ফলক উন্মোচন ও হেলিপ্যাড এলাকার নিরাপত্তার লক্ষে র‍্যাবের প্রয়োজনীয় সংখ্যক টহল মোতায়েন থাকবে।

অনুষ্ঠান চলাকালীন সার্বিক নিরাপত্তার জন্য র‍্যাবের কন্ট্রোল রুম, স্ট্রাইকিং রিজার্ভ, Outer Perimeter পেট্রোল, মোটরসাইকেল পেট্রোল, ফুট পেট্রোল, বোট পেট্রোলিং, অবজার্ভেশন পোস্ট, চেক পোস্ট এবং প্রয়োজনীয় সংখ্যক সিসিটিভি মনিটরিং এর ব্যবস্থা থাকবে।

পদ্মা বহুমুখী সেতুর দুই প্রান্ত, সমাবেশ স্থলসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানসমূহে র‍্যাবের বোম্ব ডিস্পোজাল ইউনিট ও ডগ স্কোয়াড দ্বারা সুইপিং সম্পন্ন করা হবে।

সমাবেশস্থল ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানসমূহে স্যুইপিং পরিচালনার পাশাপাশি র‍্যাবের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট যে কোন উদ্ভুত পরিস্থিতির জন্য সার্বক্ষণিকভাবে প্রস্তুত থাকবে।

যে কোন ধরণের নাশকতা/হামলা মোকাবেলায় সেতুর দুই প্রান্তেই র‍্যাব স্পেশাল ফোর্স-এর কমান্ডো টীমকে সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রাখা হবে।

পাশাপাশি, যে কোন পরিস্থিতিতে র‍্যাব এয়ার উইং-এর হেলিকপ্টার সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রয়েছে।

যেকোন প্রয়োজনে প্রাথমিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে সেতুর দুই প্রান্তেই র‍্যাবের মেডিকেল টীম নিয়োজিত থাকবে।

পদ্মা বহুমুখী সেতুর দুই প্রান্তে নিরাপত্তা নিশ্চয়নে দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যাটালিয়নসমূহ নিজ নিজ কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও অন্যান্য আইন-শৃংখলা বাহিনীর সাথে সমন্বয় করবে। র‍্যাব সদর দপ্তরের কন্ট্রোল রুম (কন্ট্রোল রুমের হটলাইন নাম্বারঃ ০১৭৭৭৭২০০২৯) ও অনুষ্ঠান স্থলে স্থাপিত কন্ট্রোল রুম (অনুষ্ঠান স্থালের কন্ট্রোল রুম নাম্বারঃ ০১৭৭৭৭২০০৪৯) এর মাধ্যমে নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ ও সমন্বয় করা হবে।

নাশকতাসহ যেকোন উদ্ভুত পরিস্থিতি মোকাবেলায় পর্যাপ্ত সংখ্যক টহল মোতায়েন ও সাদা পোশাকে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করার মাধ্যমে নাশকতাসহ যেকোন ধরণের উদ্ভুত পরিস্থিতি কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে।

দুই প্রান্তে পদ্মা বহুমুখী সেতুর প্রবেশ স্থান ও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ স্থানসমূহে র‍্যাবের চেকপোস্ট স্থাপনের মাধ্যমে আগত যানবাহন ও সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের তল্লাশী করা হবে।

গোয়েন্দা তথ্য, সাইবার মনিটরিংসহ অন্যান্য তথ্য বিশ্লেষণপূর্বক স্বপ্নের পদ্মা বহুমুখী সেতু উদ্বোধনকে কেন্দ্র করে কোন ধরণের হামলা/নাশকতার ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট তথ্য পাওয়া যায়নি। তবুও আমরা আত্মতুষ্টিতে ভুগছিনা। গোয়েন্দা নজরদারি ও সাইবার জগতে মনিটরিং বৃদ্ধির মাধ্যমে জঙ্গিদের যে কোন ধরণের নাশকতার পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দিতে প্রস্তুত রয়েছে র‍্যাব

ভার্চুয়াল জগতে পদ্মা বহুমুখী সেতুকে কেন্দ্র করে যেকোন ধরণের গুজব/উস্কানিমূলক তথ্য/মিথ্যা তথ্য ছড়ানো প্রতিরোধেও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণে র‍্যাব সাইবার মনিটরিং টীম অনলাইনে সার্বক্ষণিক নজরদারি অব্যাহত রাখছে।

র‍্যাব সদর দপ্তর সার্বিক কার্যক্রম সার্বক্ষণিকভাবে মনিটর করবে।
দেশের ১৮কোটি মানুষ পদ্মা বহুমুখী সেতু উদ্বোধনের অপেক্ষার প্রহর গুনছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক উদ্বোধনের মাধ্যমে বাণিজ্য, যোগাযোগ ও পর্যটনসহ দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে মাইলফলক হয়ে থাকবে পদ্মা সেতু।

বাংলাদেশের সকল মানুষ পদ্মা বহুমুখী সেতু উদ্বোধনে অত্যন্ত উৎসাহ উদ্দীপনার শামিল হবে- সাংবাদিকসহ সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি সংবাদ সম্মেলনে শেষ করেন।