ArabicBengaliEnglishHindi

পিরোজপুর জেলার ৭ নং গুয়ারেখা ইউনিয়নে উপ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী কর্মীদের মারপিটের অভিযোগ


প্রকাশের সময় : জুলাই ১০, ২০২৩, ২:১২ অপরাহ্ন / ৩৬২
পিরোজপুর জেলার ৭ নং গুয়ারেখা ইউনিয়নে উপ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী কর্মীদের মারপিটের অভিযোগ

স্বরূপকাঠি প্রতিনিধি ->>
পিরোজপুর জেলার স্বরূপকাঠি উপজেলার ৭ নং গুয়রেখা ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমান মিজান অটো রিক্সার প্রতীক পেয়ে নির্বাচনীয় প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন।

তার প্রতিদ্বন্দ্বী ফারজানা আক্তার নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনীয় প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন নৌকা প্রতীকের ক্যাডার বাহিনীরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় মিটিং ও গণসংযোগ করার সময় হুমকি মূলক বক্তব্য রাখেন এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী কর্মীদের ভয় ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করে আসছে।

রবিবার দিন বিকাল ৬ ঘটিকায় চাঁদ কাঠিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী অটোরিকশা মার্কার প্রচার-প্রচারণা ও মিটিং শেষে মিজানুর রহমান মিজান ও তার কর্মীরা আনুমানিক রাত ৮ ঘটিকার দিকে লেগুনাজগে বাড়ি ফেরার পথে বাটনা তলায় নৌকা মার্কার ক্যাম্পের সামনে থেকে আসার সময় লেগুনা অবরুদ্ধ করে গাড়ি থেকে টেনে হ্যাচরে নামিয়ে তাদের সবাইকে লাঠি দিয়ে মারপিট করে, নৌকা প্রতীক ফারজানা আক্তারের স্বামী পলাশ বাহিনীর ক্যাডাররা এতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর ৮ জন কর্মী আহাত হয়।

এ ঘটনাটি ঘটে পাটিকেল বাড়ি পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ এসআই মজিবর ও এএসআই অলিদ এর সামনে তিনি ঘটনার সময় নীরব ভূমিকা পালন করে বলে সাংবাদিকদের জানায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীরা।

এর মধ্যে গুরুতর আহত হয় সাগর ফকির নামে একজন তাকে স্বরূপকাঠি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক গুরুতর যখন হওয়ায় বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।

এবিষয়ে স্বরূপকাঠি থানায় স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমান মিজান অভিযোগ করতে গেলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অফির্সাস ইনচার্জ অভিযোগ না নিয়ে তিনি বলেন আপনি নির্বাচনী অফিসে অভিযোগ করেন তারপর আমরা দেখবো।