ArabicBengaliEnglishHindi

বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির নবীনবরণ ও ব্লেন্ডেড লার্নিং সল্যুশনের উদ্ভোধন


প্রকাশের সময় : জুন ১, ২০২২, ৮:৩৪ অপরাহ্ন / ৫৭
বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির নবীনবরণ ও ব্লেন্ডেড লার্নিং সল্যুশনের উদ্ভোধন

কালিয়াকৈর( গাজীপুর) প্রতিনিধি ->>

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির (তৃতীয়তম) ব্যাচের ছাত্র-ছাত্রীদের নবীন বরন ও ব্লেন্ডেড লার্নিং সল্যুশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ (১জুন) বুধবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ড.মুনাজ আহমেদ নূরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষা মন্ত্রী ডা.দীপু মনি বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও পদ্মা সেতু উদ্বোধনকে সামনে রেখে একাত্তরের পরাজিত শক্তিরা আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে।

এসময় মন্ত্রী আরো বলেন, যখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনা করে ও আওয়ামীলীগ দল ক্ষমতায় থাকে। তখন শিক্ষাঙ্গনে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় থাকে এবং শিক্ষার পরিবেশ উন্নত হয়, শিক্ষার মান উন্নত হয়। এতদিন এত শান্তিপূর্ণ পরিবেশ থাকা সত্ত্বেও আজকে হঠাৎ করে এই যে উত্তাপ সৃষ্টি করার অপচেষ্টা এটা কেন? যখন আরেকটা পচাত্তরের ঘটনা ঘটানোর ঘৃণ্য হুমকি দেয়া হয়। তার মানে হচ্ছে সেই একাত্তরের পরাজিত অপশক্তি, পচাত্তরের হত্যাকারী, ২হাজার একের হত্যা ও ধর্ষণকারী, ২হাজার চারের গেনেট হামলাকারী, তের-চৌদ্দের অগ্নি সন্ত্রাসকারী। তারাই কিন্তু আবার মাথাচাড়া দিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে।

মন্ত্রী পদ্ম সেতুর কথা তুলে ধরে বলেন, বিশেষ করে এই মুহূর্তে আমাদের যে স্বপ্নের পদ্মা সেতু উদ্বোধন করাকে সামনে রেখেই এই অপশক্তি গুলো আবার মাথাচাড়া দিয়ে জেগে ওঠার চেষ্টা করছে। পদ্মা সেতু শুধু যোগাযোগের বিশাল অবকাঠামো না। এটি বাঙালির আত্মমর্যাদা এবং আত্মবিশ্বাসের একটি অনন্য প্রতীক। সেটি শুভ উদ্বোধনের ঠিক আগ মূহুর্তে এই যে একটি খারাপ পরিস্থিতি সৃষ্টি করার চেষ্টা করা হচ্ছে।এছাড়াও একটি ঘৃণ্য হুমকি দেয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে, যে হুমকি কোন রাজনীতির অংশ হতে পারে না। এটি সন্ত্রাসীদের ভাষা, হত্যাকারীদের ভাষা। এ কারণেই এ হুমকিকে আমি তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মোঃ আশরাফুজ্জামান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান (ভারপ্রাপ্ত) ফারজানা আক্তার, রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো.আশরাফ উদ্দিনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা, শিক্ষক-ছাত্র-ছাত্রী ও আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।