ArabicBengaliEnglishHindi

বার বার শিরোনামে আসলেও বন্ধ হচ্ছেনা ফুটপাতের চাঁদাবাজি!


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ৩, ২০২২, ১২:০২ পূর্বাহ্ন / ৩১৫
বার বার শিরোনামে আসলেও বন্ধ হচ্ছেনা ফুটপাতের চাঁদাবাজি!

এস এম জীবন ->>

রাজধানীর মিরপুরে অলৌকিক শক্তিতে চলছে ফুটপাতের চাঁদাবাজি, বন্ধ করা যাচ্ছেনা কোনভাবেই এই ফুটপাতের চাঁদাবাজি। সাম্প্রতিক বার বার পএিকার শিরোনামে প্রকাশের পর ও বন্ধ না হওয়ার কারন খুজতে অনুসন্ধান করেন দৈনিক জনতার বাংলা প্রতিবেদক।

মিরপুর ১ নং শাহআলী থানার আওতাধীন ঈদগাহ মাঠ এর পুর্ব পাশে ফুটপাত বন্ধ করে দীর্খদিন ধরে চাঁদাবাজি করছেন নুর হোসেন নুরু ও ইউনুস গং বর্তমানে নুর হোসেন নুরুর মেয়ে জামাই শরীফ কে নিয়ে চালাচ্ছে ঈদগাঁহর ফুটপাতের চাঁদাবাজি।
শাহআলী থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম পিপিএম যোগদান করার পর একেরপর এক ফুটপাত উচ্ছেদ করলেও মিরপুর শাহআলী থানাধীন ঈদগাঁহ মাঠের কাঁচা বাজার রয়ে গেছে ধরাছোয়ার বাইরে, এর ফলে নূর হোসেন ক্ষমতার দাপটে বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন বলে জানা যায়।

চিড়িয়াখানা রোডের ফুটপাত এবং রাস্তার এক পাশ দখল করে গড়ে তুলেছেন কাঁচা বাজারের পাশেই বিভিন্ন গাড়ির গ্যারেজ থাকার কারণে বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে হাজারো পথচারীদের যেমন চিড়িয়াখানা, বোটানিক্যাল গার্ডেনে দুর দূরান্ত থেকে ঘুরতে আশা দর্শনার্থীদের।এই কাঁচা বাজার নিয়ন্ত্রণের নৃপথে আছে এক শক্তিশালী স্হানীয় সিন্ডিকেট এই কারনে উচ্ছেদ হচ্ছেনা বলে এলাকাবাসীর অভিমত।

অনুসন্ধানে যানা নুর হোসেন ফুটপাতের চাঁদাবাজির টাকা তুলে সেবন করে ইয়াবা, খেলেন জুয়া, গরীব অসহায় মানুষের টাকা নিয়ে মাস্তি করা নুর হোসেন নুরুর এহেন কর্মকান্ডে হতবাক এলাকা বাসি।
এই বাজারে মাছ, মাংস, মুরগি,সবজি মিলে আনুমানিক ৩০০ দোকান বসে প্রতিদিন এক দোকান থেকে ২৮০- ৩২০ টাকা আদায় করেন নুরু গং যার প্রতিদিন কালেকশন হয় ৩০০*৩০০= ৯০,০০০ হাজার টাকা যার ভাগ হয় পিআই, টিআই,স্হানীয় আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাএলীগ সহ স্হানীয় কাউন্সিলর এর মাঝে আগামী পর্বে আসছে বিস্তারিত।