ArabicBengaliEnglishHindi

মালদ্বীপের পরিবেশ প্রতিমন্ত্রীর উপর হত্যার উদ্দেশ্য হামলা, একজন গ্রেপ্তার


প্রকাশের সময় : অগাস্ট ২৫, ২০২২, ১:০৩ অপরাহ্ন / ৩৭
মালদ্বীপের পরিবেশ প্রতিমন্ত্রীর উপর হত্যার উদ্দেশ্য হামলা, একজন গ্রেপ্তার

মোহাম্মদ মাহামুদুল মালদ্বীপ প্রতিনিধি ->>

সোমবার বিকেলে মলদ্বীপের পরিবেশ প্রতিমন্ত্রীর উপর হামলা করল করেছে এক স্থানীয় মালদ্বীভিয়ান । মন্ত্রীর হাতে আঘাত লাগে। হামলাকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

মসজিদ নির্মাণ কাজে আর্থিক সাহায্যের আবেদন

 

মালদ্বীপের রাজধানীর উত্তরে হুলোহুলো মালেতে এই ঘটনা ঘটে। হামলায় মন্ত্রীর বাঁ হাতে আঘাত পেয়েছে । এই ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে হামলাকারীকে গ্রেফতার করা হয়।

মলদ্বীপের পরিবেশ, জলবায়ু পরিবর্তন ও প্রযুক্তিবিদ্যার প্রতিমন্ত্রী হলেন সোলিহ। তিনি মালদ্বীপের রাজনৈতিক দল, জুমহুরি পার্টির মুখপাত্র মলদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম সোলিহর দল মালদ্বীভিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টি (এমডিপি) জোটসঙ্গী হল এই জুমহুরি দল।

মলদ্বীপের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম এর রিপোর্ট অনুযায়ী, হুলোহুলো মালেতে দুপুর ১ঃ৩০ মিনিটে মোটরসাইকেল নিয়ে বেরিয়েছিলেন মলদ্বীপের মন্ত্রী আলি সোলিহ। সেই সময় স্থানীয় এক ব্যক্তি তাঁর উপর ছুরি নিয়ে জনসমক্ষে তার উপর হামলা করেন। সেখানকার সংবাদ সংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী, সোলিহ-র গলায় ছুরি দিয়ে হামলা করার চেষ্টা করা হয়েছিল। পিছন থেকে আক্রমণ করেছিল আততায়ী। তবে গলায় হামলা করার লক্ষ্য ব্যাথ হয়ে যায়। গলার বদলে ছুরির আঘাত লাগে মন্ত্রীর বাঁ হাতে।

তিনি বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন – পুলিশ জানিয়েছে যে তারা হামলার সাথে জড়িত সন্দেহে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

আলী সোলিহ এই ঘটনার বিষয়ে কিছু গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেছেন এবং তিনি বলেন যে তিনি মোটরসাইকেলে যাওয়ার সময় তার উপর হামলা করা হয় ।

প্রতিমন্ত্রী বলেন যে আততায়ী একটি কাটার দিয়ে তার ঘাড়ে ছুরিকাঘাত করার চেষ্টা করেছিল

কিছু মিডিয়া রিপোর্টে বলা হয়েছে যে গ্রেফতারকৃত সন্দেহভাজন সেই ব্যক্তিকে কয়েক মাস আগে সালমান মসজিদের মিম্বারে দাঁড়িয়ে জুমার নামাজের সময় চিৎকার করার জন্য গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট মহম্মদ নাশিদও গতবছর মালদ্বীপে হামলার শিকার হন।

অভিযুক্তের নাম এখনও পর্যন্ত সংবাদমাধ্যমের কাছে প্রকাশ করা হয়নি। হামলার পর তাকে আশপাশে দাঁড়িয়ে থাকা লোকজনের সঙ্গে স্থানীয় ভাষায় তর্ক করতেও দেখা যায়। কিছুক্ষণ পর পুলিশ তাকে আটক করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে হাজির করা হয় হামলাকারীকে। সেখানে তাকে ১৫ দিনের রিমান্ডে নিরাপত্তা সংস্থার কাছে হস্তান্তর করা হয়। সোলিহকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

এই হামলার সম্পুর্ণ ঘটনার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হয়েছে। সেই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, হামলাকারীর হাত থেকে নিজেকে বাঁচাতে মোটরসাইকেল থেকে নেমে ছুটে চলে যাচ্ছেন মন্ত্রী।