ArabicBengaliEnglishHindi

মালদ্বীপে হাইকমিশনার অফিসে ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবস পালন


প্রকাশের সময় : অগাস্ট ১৬, ২০২২, ১২:১২ অপরাহ্ন / ৩৯
মালদ্বীপে হাইকমিশনার অফিসে ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবস পালন

মোহাম্মদ মাহামুদুল মালদ্বীপ থেকে ->>

মালদ্বীপে বাংলাদেশ হাইকমিশনের উদ্যোগে সোমবার ১৫ আগস্ট যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী এবং জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়েছে।

 

 

এ উপলক্ষে হাইকমিশনার প্রাঙ্গণে এক বিশেষ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি এ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

মালদ্বীপের বাংলাদেশ হাইকমিশন অফিসের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন বাংলাদেশের হাইকমিশনার রিয়ার অ্যাডমিরাল এস এম আবুল কালাম আজাদ

দিনের প্রথম কর্মসূচি সকাল ৯টায় বাংলাদেশ দূতাবাস প্রাঙ্গণে ও হাইকমিশনার এর বাসভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার মধ্য দিয়ে শুরু হয়।

কর্মসূচির অংশ হিসেবে দ্বিতীয় পর্বে সন্ধ্যায় তরজমাসহ পবিত্র কুরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করা হয়। এরপর উপস্থিত সবাই দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রতিমন্ত্রীর প্রদত্ত বাণী পাঠ করে শোনানো হয়। এরপর দূতাবাসের প্রথম সচিব ও দূতালায় প্রধান মো. সোহেল পারভেজ স্বাগত বক্তব্য দেন।

 

মসজিদ নির্মাণ কাজে আর্থিক সাহায্যের আবেদন

 

পরে প্রবাসী বাংলাদেশিদের পক্ষ থেকে বক্তব্য দেন ব্যবসায়ী, সিআইপি আলহাজ সোহেল রানা, ও বাংলাদেশের বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ মুক্তার আলী লস্কর। বক্তব্যর পরে অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুর কর্ম ও জীবন নিয়ে প্রামাণ্য চিত্র প্রর্দশন করা হয়।

হাইকমিশনার তার বক্তব্যের শুরুতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন ও ১৫ আগস্ট নিহত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবারের সদস্যদের জন্য দোয়া করে রুহের মাগফিরাত কামনা করেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন তা বাস্তবায়ন করার জন্য প্রধানমন্ত্রী চেষ্টা করে যাচ্ছেন। কিন্তু শুধুমাত্র সরকারের একার চেষ্টা দেশের উন্নতি ও অগ্রগতির জন্য যথেষ্ট নয়। আমাকে-আপনাকে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। তাহলে সোনার বাংলা গড়া সম্ভব হবে।মালদ্বীপে বাংলাদেশি প্রবাসীদের বৈধ পথে রেমিটেন্স পাঠিয়ে দেশের উন্নয়নের অংশীদারিত্ব হওয়ার জন্য আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্য দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ব্যাবসায়ী, ও আওয়ামিলীগ এর সাধারণ সম্পাদক, দুলাল হোসেন, এনবিএল মানি ট্রান্সফার মালদ্বীপ এর লোকাল ডাইরেক্টর হান্নান খান কবির, ইসলামি ব্যাংক বাংলাদেশে এর মালদ্বীপ প্রতিনিধি, মাসুম বিল্লাহ, ব্যাবসায়ী,মজিবুর রহমান, আওয়ামী লীগের, সহ সভাপতি, মনির হোসেন, প্রবাসী সোস্যাল এসোসিয়েশন এর সভাপতি জাকির হোসেন, আওয়ামিলীগ এর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, নুরে আলম রিন্টু, আওয়ামিলীগ এর সিনিয়র সভাপতি হাজি সাদেক, সহ আওয়ামিলীগ এর অন্যান্য নেতৃবৃন্দ, সহ অনেক প্রবাসী বাংলাদেশী।