ArabicBengaliEnglishHindi

মিরপুর শাহআলী এলাকায় শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগে থানায় মামলা


প্রকাশের সময় : জুলাই ২৫, ২০২২, ৮:৪৪ অপরাহ্ন / ১১১
মিরপুর শাহআলী এলাকায়  শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগে থানায় মামলা

এস এম জীবন ->>
রাজধানী মিরপুর শাহআলী থানা এলাকাতে আট বছরের এক ছেলে শিশুকে সিঙ্গারা ও টাকা দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে শিশুটিকে শুকৌসলে হোটেলের রান্না ঘরের ভেতরে ডেকে নিয়ে মুখ চেপে ধরে বলাৎকার করছেন জনি (২০) নামের ওই ব্যাক্তি।

 

মসজিদ নির্মাণ কাজে আর্থিক সাহায্যের আবেদন

 

জানা গেছে, চাঁদপুর জেলার গাজিবাড়ীর বড়শাহ তলী এলাকার মৃত জয়নালের ছেলে জনি।

রোববার ২৪ জুলাই দুপুর ১ টার দিকে শাহআলী থানাধীন ১নং ডি-ব্লক ৬-নং রোডের জাকের খাবার হোটেলের ভিতর এ ঘটনাটি ঘটে। এ সময়ে ছেলে শিশুটির ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে বলাৎকারের বিষয়টি জানতে পারলে উৎসুক জনতারা জনিকে উত্তম মাধ্যম দেওয়ার সময় জাকের খাবার হোটেলের মালিক মোঃ জুয়েল বলাৎকারকারি জনিকে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করেন বলে অভিযোগ ওঠে।

পরে বাদিকে বিশ হাজার টাকার বিনিময়ে আপষ মিমাংসা মাধ্যমে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয় হোটেল মালিক জুয়েল। এ সময়ে উপস্থিত জনতা বিষয়টি জরুরী সেবা (৯৯৯) কল দিয়ে জানালে দুই তিন মিনিটের মধ্যে শাহআলী থানার পুলিশ এসআই আল-আমিন, এসআই এমাদুল হক সহ সঙ্গীয় অফিসারগন এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে অভিযোগ গ্রহন করার পর শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন।

 

মসজিদ নির্মাণ কাজে আর্থিক সাহায্যের আবেদন

 

হোটেল মালিক জুয়েল ও আসামী জনির মাকে থানায় নিয়ে আসেন। পরে শিশুটির মা রাজিয়া আক্তার (৩৪) বাদি হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করলে জনিকে আটক দেখিয়ে আদালতে প্রেরন করেন শাহআলী থানা পুলিশ। এ বিষয়ে শাহআলী থানায় একটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের (৯) এর ক) ধারায় ২৪/৭/২০২২ ইং তারিখে মামলা হয় যার মামলা নং- (১৭)। শাহআলী থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম পিপিএম বলেন, আসামি জনিকে গ্রেফতারে আমরা ভিন্ন কৌসল অবলম্বন করলে আসামী জনি (২০) থানায় এসে ধরা দিতে বাধ্য হয়।

পরে তাকে আটক দেখিয়ে আদালতে প্রেরন করা হয় বলে জানান।