ArabicBengaliEnglishHindi

রাজধানীর মিরপুর চিড়িয়াখানায় হায়েনার আক্রমনে শিশুর কব্জি বিচ্ছিন্ন


প্রকাশের সময় : জুন ৮, ২০২৩, ৮:৪০ অপরাহ্ন / ৩০৭
রাজধানীর মিরপুর চিড়িয়াখানায় হায়েনার আক্রমনে শিশুর কব্জি বিচ্ছিন্ন

মোঃ ইস্রাফিল ->>
রাজধানীর মিরপুরে জাতীয় চিড়িয়াখানায় ঘুরতে এসে হায়েনার কামড়ে দুই বছরের এক শিশুর হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। বর্তমানে শিশুটি রাজধানীর পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

বিষয়টি খতিয়ে দেখতে তিন সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৮ জুন) সন্ধ্যায় এ তথ্য জানান মিরপুর জাতীয় চিড়িয়াখানার পরিচালক ড. মো. রফিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাবা-মায়ের সঙ্গে বাচ্চাটি চিড়িয়াখানায় বেড়াতে আসে। তারা রংপুর থেকে ঢাকায় এসেছিল। বাচ্চার মা-বাবা নিরাপত্তা বেষ্টনী পার হয়ে শিশুকে নিয়ে হায়েনার খাঁচার কাছে চলে যান। যদিও খাঁচায় নেট দেওয়া ছিল। কিন্তু ছোট বাচ্চা নেটের ভেতর দিয়ে হাত ঢুকিয়ে দেয়। তখনই বাচ্চার হাত কামড়ে কব্জি থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে হায়েনা। আর সেই হাত খেয়ে ফেলে।

ঘটনার সঙ্গে সঙ্গেই ওই শিশুকে ভেটেরিনারি হাসপাতালে নিয়ে যান নিরাপত্তাকর্মী। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

চিড়িয়াখানার পরিচালক বলেন, অধিদপ্তর থেকে কর্মকর্তারা এসে সবকিছু ঘুরে দেখেছেন। বর্তমানে আমাদের তত্ত্বাবধানে শিশুটির চিকিৎসা চলছে। হাসপাতালে আমাদের দুজন কর্মকর্তা উপস্থিত রয়েছেন। ঘটনাটি কীভাবে ঘটলো ও কারো কোনো গাফিলতি রয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখতে মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তর থেকে তিন সদস্য করে আলাদা আলাদা দুটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। আগামী তিন কর্মদিবসের মধ্যে কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

পরিচালক বলেন, এই ঘটনার পর চিড়িয়াখানার নিরাপত্তা নিয়ে আমাদের নতুন করে চিন্তা-ভাবনা করতে হবে। কেন এমন ঘটলো ও নিরাপত্তা বাড়াতে আরও কি কি করা যেতে পারে সেটি খতিয়ে দেখতে চিড়িয়াখানার দুজন কর্মকর্তার সমন্বয়ে একটি তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। আগামী তিনদিনের মধ্যে তাদের প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

শিশুর চিকিৎসায় জাতীয় চিড়িয়াখানার পক্ষ থকে সব দায়িত্ব বহন করা হবে বলে জানান পরিচালক। একই সঙ্গে এতে কারো গাফিলতি পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।